তিসির বীজের পুষ্টিগুণ - breakinggram

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Tuesday, 23 February 2021

তিসির বীজের পুষ্টিগুণ


ফ্ল্যাকসিড এক প্রকারের কার্যকরী খাবার এটির পুষ্টিগুণের তুলনা নেই। এই বাদামী এবং ভোজ্য বীজে পলিঅনস্যাচুরেটেড ফ্যাটি অ্যাসিড যেমন লিগানানস, ফাইবার, প্রোটিন, আলফা লিওনোলিক অ্যাসিড বা ওমেগা থ্রি রয়েছে। এই বীজটিকে সুপারফুড বলা হয় কারণ এতে অন্যান্য খাবারের চেয়ে 600 গুণ বেশি লিনগান থাকে। এই বীজগুলি থেকে সর্বাধিক উপকার পেতে আপনি ফ্ল্যাকসিড তেল ব্যবহার করতে পারেন। এ ছাড়া বীজ ভিজিয়ে বা গুঁড়ো করলে তা দ্রুত শরীরে শোষিত হতে পারে। সকালে এই বীজ সিরিয়াল বা দইয়ের সাথে খাওয়াও উপকারী। 

প্রতিদিন অল্প তিসি খাওয়ার অন্যান্য সুবিধাগুলি হজম ক্ষমতা এবং কোষ্ঠকাঠিন্য: তিসির বীজে ডায়েটরি ফাইবার সমৃদ্ধ। এটিতে দুই ধরণের তন্তু থাকে, দ্রবণীয় এবং দ্রবণীয়। দ্রবণীয় ফাইবার কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে মুক্তি দেয় এবং অন্ত্রের টক্সিনগুলি বের করতে সহায়তা করে। একই সঙ্গে, এই বীজ হজমশক্তি বাড়াতেও ভূমিকা রাখে। 

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করে: রক্তে শর্করার নিয়ন্ত্রণে শ্লেষের বীজ অত্যন্ত কার্যকর। ফ্ল্যাকসিড অদৃশ্য ফাইবারগুলি লিগানান দিয়ে তৈরি করা হয় যা রক্তে শর্করার মাত্রা কমায়। 

হার্টকে স্বাস্থ্যকর রাখে: ফ্ল্যাক্স বীজ এমিনো অ্যাসিড, আর্গিনাইন এবং গ্লুটামিন সমৃদ্ধ। এই উপাদানগুলি হৃদয়কে ভাল রাখে। তিসি রক্তচাপ কমায়, খারাপ কোলেস্টেরল কমায়, ধমনীতে কোনও পদার্থ জমে বাধা দেয়। এই কারণে, এই বীজগুলিও অপ্রত্যক্ষভাবে স্ট্রোক বা হৃদরোগ প্রতিরোধ করে। 

ক্যান্সারের ঝুঁকি হ্রাস করে: তিসিতে লিগিন থাকে যা কোলন, প্রোস্টেট এবং স্তনের ক্যান্সার প্রতিরোধে সহায়তা করে। এর অ্যান্টি-অ্যাঞ্জিওজেনিক গুণগুলি দেহে টিউমার গঠনে বাধা দেয়। 

স্নায়ুতন্ত্রের জন্য ভাল: অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ তিসির বীজ স্নায়ুর পক্ষে উপকারী। এটি স্নায়ুগুলি ভাল রাখতে ভূমিকা রাখে। 

চুল এবং ত্বককে সুন্দর রাখে: ত্বক এবং চুলের জন্য ফ্ল্যাক্স বীজ জেল দুর্দান্ত। এটি ফ্ল্যাচি বা রুক্ষ এবং রুক্ষ ত্বকে খুব ভাল কাজ করে। নিয়মিত তিসি খাওয়া বা তেল প্রয়োগ করা ত্বককে নরম করে তোলে। এই বীজগুলি শুকনো মাথার ত্বকে ময়শ্চারাইজও করে।

No comments:

Post a comment

Post Top Ad