টানা বৃষ্টিতে ভেসে গেল কয়েক লাখ টাকার মুরগি, মাথায় হাত ফার্ম মালিকের - breaking gram

Breaking

Friday, 30 July 2021

টানা বৃষ্টিতে ভেসে গেল কয়েক লাখ টাকার মুরগি, মাথায় হাত ফার্ম মালিকের


আমফানের ক্ষত এখনও শুকায়নি। এর মধ্যে নিম্নচাপের  বৃষ্টিতে ২ হাজার মুরগি বিক্রয়জাত হয়েছে। দাম প্রায় তিন লাখ টাকা ।ফলস্বরূপ, হাঁস-মুরগির খামারের ব্যবসায়ী সুব্রত চৌধুরী মাথাছাড়া হয়ে যান। দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলার জয়নগর থানা এলাকার নুরুল্লাপুর গ্রামের বাসিন্দা সুব্রত চৌধুরীর বাড়ির পাশে একটি মুরগির খামার রয়েছে। দীর্ঘ। বছর ধরে তিনি এই ব্যবসার সাথে জড়িত। কিন্তু তার ব্যবসাটি বেশ কয়েকটি প্রাকৃতিক দুর্যোগে কার্যত পঙ্গু হয়ে পড়েছে। 

সুব্রতবাবুর কথায়, 'গত তিন দিনে প্রায় দুই হাজার রেডিমেড মুরগি নিম্নচাপ বৃষ্টির কারণে নষ্ট হয়ে গেছে। এগুলোর দাম প্রায় ৩ লাখ টাকা। আর এই মুরগিগুলো ৫ দিন পর ডেলিভারি করার কথা ছিল। তার আগে এত ক্ষতি হয়েছিল। আমি জানি না এখন কি করব। তবে সুব্রত বাবু সারা রাত জলের মেশিন বসিয়ে খামারের পানি ফিল্টার করার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু কোন সমাধান হয়নি। ফলস্বরূপ, এই পোল্ট্রি ব্যবসায়ী কার্যত কান্নায় ভেঙে পড়েছেন। বেঁচে থাকা কয়েকটি মুরগি তুলনামূলক কম দামে এলাকায় বিক্রি হচ্ছে। বণিকের কথায়, 'খামারে হাঁটু জল। 

জলে থাকা কিছু মুরগিও মারা যাবে। তাই আমি এটি কম দামে বিক্রি করছি। সুব্রতবাবু বলেন, 'লক্ষ লক্ষ টাকার ক্ষতির পর, সরকারী সাহায্য ছাড়া ব্যবসা চালু করা সম্ভব নয়। তাই তিনি সরকারের কাছে সাহায্যের আবেদন করছেন। উল্লেখ্য, গত বছর ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের কারণে নুরুল্লাপুর গ্রামের এই পোল্ট্রি ব্যবসায়ীও ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হন। চাকরীর পরে সুব্রত চৌধুরী সরকারী সহায়তা পেয়েছিলেন। এবারও তিনি সেই আশা ধরে রেখেছেন।

No comments:

Post a Comment